বাগাতিপাড়ায় বিষপানে যুবক আত্মহত্যা

বাগাতিপাড়া সংবাদদাতা :
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় বাবার কাছে টাকা চেয়ে না পেয়ে অভিমানে ঘাষ মারা কীটনাশক (বিষ) পানে ছেলে বাঁধন মন্ডল (১৭) নামের এক যুবক আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।
রবিবার (২৫ জুলাই) বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সে মারা যায়।
মৃত বাঁধন উপজেলার দয়ারামপুর ইউনিয়নের মিশ্রিপাড়া গ্রামের শিক্ষক সাহাবুদ্দিন মন্ডলের ছোট ছেলে।
মৃতের চাচা স্থানীয় ইউপি সদস্য আশরাফ আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বাবা-মায়ের দুই ছেল ও তিন মেয়ের মধ্যে বাঁধন ছোট ছেলে। অষ্টম শ্রেণীতে পড়া অবস্থায় সে পড়ালেখা বন্ধ করে দিয়ে মাথায় বড় বড় চুল রেখে বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়াত। সম্প্রতি তার বাবা অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক প্যারালাইজডে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরইমধ্যে বাঁধনের বাবা অবসরকালীন টাকায় বড় ছেলেকে একটি ল্যাপটপ কিনে দিয়েছেন জেনে বাঁধনও বাবার কাছ থেকে তিন হাজার টাকা দাবি করেন। কিন্তু ছেলেকে সে টাকা দিতে রাজি হননি বাবা। বাবার কাছ থেকে টাকা না পেয়ে আত্নহত্যার জন্য শনিবার (২৪ জুলাই) বেলা ১১ টার দিকে বাঁধন ঘাস মারা কীটনাশক (বিষ) পান করে। বিষয়টি টের পেয়ে পরিবারের সদস্যরা তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) ভর্তি করেন। রোববার (২৫ জুলাই) বিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শর্টলিংকঃ