নাটোরে পারিবারিক কলহে মা-মেয়ের গলায় ফাঁস! মেয়ের মৃত্যু!


ষ্টাফ রিপোর্টারঃ
নাটোর সদর উপজেলার হালসা এলাকায় পারিবারিক কলহের জেরে একই বাড়ির দুই ঘরে মা মেয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। এ সময় ওই মেয়ের মৃত্যু হয়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় মাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
সদর থানার ওসি মুনসুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
নিহত মুন্নি (২০)হালসা মন্ডল পাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য খোরশেদ আলমের মেয়ে এবং নাটোর রানী ভবানী সরকারি মহিলা কলেজে অনার্স ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী।
তার মায়ের নাম জাহেদা বেগম(৩৩)।
স্থানীয় গ্রামবাসী রাজ্জাক ও নিহতের নানি জানান, খোরশেদ মেম্বারের দুই ছেলে ও এক মেয়ে। সম্প্রতি ভোটে দাড়িয়ে সে নির্বাচিত হতে পারেনি। ওই ভোটকে কেন্দ্র করে তার অনেক ঋণ হয়েছে। এ নিয়ে পারিবারিক অশান্তির চলছিল। এর বাইরে হঠাৎ করে জানা যায়, সে গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করেছে। এ নিয়ে পারিবারিক অশান্তির জেরে দুপুরের দিকে ওই ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে স্থানীয়রা মাকে উদ্ধার করে রামেকে ভর্তি করলেও মেয়েকে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়।
এবিষয়ে যোগাযোগ করা হলে খোরশেদ আলমের ফোন বন্ধ পাওয়া গেলেও খোরশেদের ভাইদের দাবি, পারিবারিক কলহের জেরে মা মেয়ের ঝগড়া থেকে এমন ঘটনা ঘটেছে।
সদর থানার ওসি মুনসুর রহমান বলেন,প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, পারিবারিক কলহের জেরে ওই ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শর্টলিংকঃ