জানাজার পাশে বসে কাঁদলেন হিন্দু প্রতিবেশীরা

নলডাঙ্গা(নাটোর)প্রতিনিধিঃ নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার ব্রহ্মপুর ইউনিউয়ের চেঁউখালি গ্রামের আজাদ মৌলভী মারা গেছেন।
শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) সকাল ১০ টায় চেঁউখালি কেন্দ্রীয় গোরস্থান মাঠে ৫২ বছর বয়সী মরহুম আজাদ মৌলভীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মৃত্যুর পর অনুষ্ঠিত জানাজায় উপস্থিত মুসল্লীরা যখন জানাজার কাতারে দাঁড়িয়ে,তখন প্রতিবেশী হিন্দুরা অশ্রুভেজা চোখে এক ধ্যানে তাকিয়ে আছে চিরচেনা প্রিয় মানুষ আজাদ মৌলভীর জানাজার দিকে। ছোট বেলা থেকে সুখে দুঃখে একসাথে বাস করা আজাদ মৌলভীর হঠাৎ মৃত্যুতে তারা আজকে গভীরভাবে শোকাহত।

ধর্মের দূরত্ব থাকলেও মানুষ হিসেবে সে দূরত্ব যেন আজ কিছুই নয় । প্রতিবেশীর চিরবিচ্ছেদে ভারাক্রান্ত হৃদয় তখন শুধুই এক হাহাকার। হিন্দু হয়ে মুসলিম কারো মৃত্যুতে তাদের কষ্টভরা এমন অনুভূতি নিয়ে জানাজার পাশে হতবাক হয়ে বসে থাকার বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে চেঁউখালি ঝুপদুয়ার গ্রামের গোবিন্দ প্রাং বলেন, আজাদ কাকা খুব ভালো মানুষ ছিলেন। উনি একজন মৌলভী হয়েও আমাদেরকে সবসময় স্নেহ ভালোবাসা ও সম্মান দিয়েছেন। ধর্মীয় কারনে তাঁর জানাজায় দাঁড়ানোর সুযোগ নেই বলে দূরে বসে তাকে বিদায় জানিয়েছি।

একই গ্রামের নৃত্যনন্দ ছলছল জলভরা চোখে বলেন,আজাদ ভাইয়ের মৃত্যুতে আমরা শোকাহত,তাঁর বিদায়বেলা উপস্থিত থাকাটা আমার মানবিক দ্বায়িত্ব।

ধর্মীয় উন্মাদনায় যখন চারিদিকে আগুন আর রক্তপাত,সেখানে আজকের এই দৃশ্যটা যেন মানবতার পথে অন্যরকম এক উদাহরণ। মানুষে মানুষে এমন সম্প্রীতি,এ যেন সত্যিকার অর্থেই মানুষের বিজয়।

 

শর্টলিংকঃ