উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ছেড়ে ইউপিতে নৌকা পেয়েও হার

আতিকুর রহমান (আতিক) লালপুর:

নাটোরের লালপুরের ৫ নং বিলমাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার শোচনীয় পরাজয় হয়েছে। উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগ করে ইউনিয়ন চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হন পারভিন আক্তার বানু। কিন্তু নির্বাচনে হেরে গেছেন উপজেলার ১০টি ইউপির একমাত্র নারী প্রার্থী।

গত রোববার ২৮ নভেম্বর নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে পারভিন আক্তার বানু ১ হাজার ৫শ ১৪ ভোট পেয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন। সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি বিদ্রোহী প্রার্থী মিজানুর রহমান মিন্টু আনারস প্রতীকে ৪ হাজার ৮শ ৫১ ভোট পেয়েছেন। তিনি মাত্র ১৪ ভোটের ব্যবধানে হেরেছেন। এই ইউপিতে সাবেক চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ছিদ্দিক আলী মিষ্টু ঘোড়া প্রতীকে ৪ হাজার ৮শ ৬৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। অপর বিদ্রোহী মোটরসাইকেল প্রতীকে আসলাম উদ্দিন পেয়েছেন মাত্র ৯শ ৩০ ভোট। এর মধ্যে নৌকা প্রতীকে পারভিন আক্তার বানু ও মোটরসাইকেল প্রতীকে আসলাম উদ্দিন জামানত হারিয়েছেন।

এই ইউনিয়নে মোট ভোটার ১৫ হাজার ৪শ ১৩ জন। পুরুষ ৭ হাজার ৭শ ৫৫ ও নারী ৭ হাজার ৬শ ৫৮ জন। নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন ১২ হাজার ৩শ ৭২ জন। বাতিল ভোট ২শ ১২টি। ভোট প্রদানের শতকরা হার ৮০ দশমিক ৩ ভাগ।

এবিষয়ে পারভিন আক্তার বানু বলেন, নৌকার বিপক্ষে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় তাঁর পরাজয় হয়েছে।

এবিষয়ে মিজানুর রহমান মিন্টু বলেন, ষড়যন্ত্রমূলকভাবে সাবেক এমপি আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি,সাধারণ সম্পাদক ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী পারভিন আক্তার বানু সহ তার অনুসারীরা বিএনপির স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ছিদ্দিক আলী মিষ্টু কে ঘোড়া প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহবান জানান তাঁরা।

শর্টলিংকঃ