ইরাক নিজের জীবন বাঁচাতে অটো ভ্যান চালিয়ে চিকিৎসার টাকা যোগাড় করছে।

সালাহ উদ্দিন :  ১১ বছরের  ইরাক নিজের জীবন বাঁচাতে অটো ভ্যান চালিয়ে চিকিৎসার জন্য টাকা যোগাড় করে বাবাকে সহযোগিতা করছে ।

লালপুরের বিলমাড়ীয়া ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামের তুরান মোল্লা ভ্যান চালিয়ে সংসার চালায় , তার ২ ছেলে ,২ মেয়ে ।  সন্তানদের মধ্যে ইরাক ২য় , জন্ম থেকেই সে অসুস্থ । প্রতি মাসে তাকে রক্ত দিতে হয় । অভাবের সংসারে বড় ছেলে ইরান ( ১৯ ) অটো ভ্যান চালায় , বড় মেয়ে জোবেদা ২য় শ্রেণীর ছাত্রী , ছোট মেয়ে তমার বয়স আড়াই বছর ।
বিলমাড়ীয়া বাজারে পল্লী চিকিৎসক মোমিনুল ইসলামের দোকানে চিকিৎসা নিতে আসলে তুরান মোল্লার সাথে কথা হয় । সে জানায় , ইরাক জন্মের পর থেকে অসুস্থ হয়েছে , প্রতি মাসে রক্ত দিয়ে বাঁচিয়ে রাখতে হয় , তার চিকিৎসা খরচ মেটাতে চরম কষ্ট পেতে হয় । এ কষ্ট দেখে অসুস্থ ছেলেটিও অটো ভ্যান চালায় । একই অসুখে  ১ম মেয়ে তহুরা ৯ বছর বয়সে মারা যায় ।
পল্লী চিকিৎসক ও ইউপি সদস্য মোমিনুল ইসলাম জানায় , ইরাক ” প্যালাসিতা ‘ নামক রোগে ভুগছে। তাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেয়া প্রয়োজন ।
শর্টলিংকঃ